জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ সমাবেশ-মশালমিছিল

0
24

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ফাইরুজ সাদাফ অবন্তিকার আত্মহত্যার ঘটনায় আজ রোববারও প্রতিবাদী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা। আজ সন্ধ্যার পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রতিবাদ সমাবেশ, মশালমিছিলসহ নানা কর্মসূচি পালন করেন তাঁরা।

‘সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ’ এবং ‘নিপীড়নের বিরুদ্ধে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়’–এর ব্যানারে এসব কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষার্থীরা। কর্মসূচি থেকে শিক্ষার্থীরা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দায়িত্বহীনতা অবন্তিকাকে আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দেয়। ঘটনা তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের উপযুক্ত শাস্তি দিতে হবে।

রাত আটটার দিকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ’–এর ব্যানারে অবন্তিকার মৃত্যর ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের অবিলম্বে কঠোর শাস্তি প্রদানের দাবিতে মশালমিছিল বের করা হয়। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এরপর হয় সংক্ষিপ্ত সমাবেশ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে শিক্ষার্থীদের পক্ষে ফিন্যান্স বিভাগের ছাত্র তৌফিকুল ইসলাম ছয় দফা দাবি উপস্থাপন করেন। দাবিগুলো হলো অবিলম্বে তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার, সংশ্লিষ্ট সবাইকে তদন্ত সাপেক্ষে জবাবদিহির আওতায় আনা, পূর্বের ঘটে যাওয়া নিপীড়নের বিচার নিশ্চিত, প্রতিটি বিভাগে নিপীড়নবিরোধী সেলের অভিযোগ বাক্স স্থাপন, কাউন্সেলিংয়ের জন্য মনোরোগ বিশেষজ্ঞ নিয়োগ এবং এসব দাবি আগামী সাত দিনের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চের সভাপতি নাঈম রাজ বলেন, ‘আমাদের আন্দোলনে প্রশাসন তৎপর হয়েছে। আমরা দোষী ব্যক্তিদের উপযুক্ত শাস্তি চাই। দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিয়ত এ ধরনের ঘটনা ঘটে চলেছে। ভবিষ্যতে আর এমন ঘটনা দেখতে চাই না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে