সাম্প্রতিক সংবাদ

নীলফামারীতে বাল্য বিয়ের দায়ে বরের পিতা ও ঘটক কারাগারে

ballo-480x320

বিডি নীয়ালা নিউজ(১৭জানুয়ারি১৬)- আসাদুজ্জামান সুজন (নীলফামারী প্রতিনিধি): বরের বাবা ও ঘটক দু’জনকেই ১৫দিন করে কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। জানা যায়, গত শনিবার রাতে নীলফামারী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক মোঃ সাবেত আলী ওই দন্ডাদেশ প্রদান করেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন গোড়গ্রাম ইউনিয়নের কিত্তনীয়া পাড়া গ্রামের বাদশা মিয়ার ছেলে শামসুদ্দিন আহমেদ (৫৫) ও ঘটক ফারুক হোসেন (২৮)।

 

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শনিবার রাতে ১৪বছর বয়সী রাকিবা আক্তারের বাল্য বিয়ের সব আয়োজন সম্পন্ন করেছিলো মেয়ের পরিবার। বর রুবেল আহমেদকে নিয়ে বরযাত্রীরা হাজির হন বিয়ের অনুষ্ঠানে। বিষয়টি গোপনে জেনে পুলিশসহ উপস্থিত হন সদর ইউএনও। ঘটনাস্থলে বর ও মেয়ে পরিবারের লোকজন পালিয়ে গেলেও পাওয়া যায় বরের বাবা শামসুদ্দিন ও ঘটক ফারুককে। রাতেই ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে আটক দু’জনের ১৫দিন করে কারাদন্ড প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাবেত আলী।

 

ইউএনও সাবেত আলী জানান, বিয়ের প্রাপ্ত বয়স না হওয়ায় ও দু’পক্ষই বিয়ের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করে ফেলে। বিয়ে না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেননি ভ্রাম্যমান আদালতে বরের বাবা। নীলফামারীর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) শাহজাহান পাশা জানান, দন্ডপ্রাপ্তদের সকালে নীলফামারী জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

shared on wplocker.com