সাম্প্রতিক সংবাদ

নানা রঙে মাফলার

fashion_dhakareport_9044

বিডি নীয়ালা নিউজ(২৭জানুয়ারি১৬)- ফ্যাশন ও স্টাইল প্রতিবেদনঃ  শীতের সময়টাতে মাফলার একটি বহু ব্যবহারিত পরিধান। বিশেষ করে ছেলেদের কাছে। তবে এখন মাফলার তরুণ-তরুণী, বয়স্ক, শিশু সবাই ব্যবহার করেন এবং এটি এখন ফ্যাশনেরও অংশ। তরুণদের গলায় মাফলার শোভা পায় নানা ঢঙে। ফ্যাশন-সচেতন তরুণীরাও পোশাকের সাথে মানিয়ে মাফলার ব্যবহার করছেন। বাজারে নিত্যনতুন মাফলারের সমাহার ঘটছে। নানা রঙ এবং ডিজাইনের মাফলার তরুণদের মধ্যে এখন বেশ জনপ্রিয়। শীতের উষ্ণতা এবং স্টাইল দুই-ই বজায় থাকে বলে মাফলার তরুণদের কাছে খুবই পছন্দের। জিন্স, টি-শার্ট, ফতুয়া কিংবা শার্টের সাথে চমৎকারভাবে মানিয়ে যায়। তরুণীদের জন্যও মাফলার ওয়েস্টার্ন আউটফিটের সাথে দারুণ মানানসই। আজকাল উলের নেট মাফলার, এন্ডিকটন, পশমি মাফলারসহ নানা রকম সুতি ও শিফনের মাফলার বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। হালকা শীতে পরার জন্য এন্ডিকটন, সুতি ও শিফনের মাফলার উপযোগী। আর ভারী শীতে পরার জন্য উলের মাফলারগুলো উপযোগী। উলের নেট নকশার মধ্যে অনেক রঙের মাফলার পাওয়া যাচ্ছে। কোনো কোনো মাফলার পাবেন উলের মধ্যে টাইডাই করা। কিছু মাফলার লেইস দেয়া, মাফলারের দুই অংশে ফুল দেয়া, নানা রকম চেক মাফলারও পাওয়া যায়। বুটিক শপে পাবেন ব্লকের সাথে হাতের কাজের দৃষ্টিনন্দন মাফলার। এসব মাফলার পোশাকের সাথে মিলিয়ে পরা যায়। অবশ্যই মাফলার কেনার আগে খেয়াল রাখতে হবে এটি আপনি শীত নিবারণের জন্য না ফ্যাশনের জন্য ব্যবহার করবেন। লং ও শর্ট দুই রকমের মাফলার পাওয়া যায়। কিছু মাফলার ছেলেমেয়ে উভয়ের ব্যবহার উপযোগী। সেভাবেই এগুলো তৈরি করা হয়েছে। মেয়েদের মাফলারগুলো তুলনামূলকভাবে একটু শর্ট ও নকশাদার হয়। উলের মধ্যে হাতে বোনা এবং চিকন উলের চেক মাফলার পাবেন ১০০ থেকে ৮০০ টাকার মধ্যে। বুটিক শপে পাতলা এবং ভারী দুই ধরনের মাফলার পাবেন ২০০ থেকে ২০০০ টাকার মধ্যে। এ ছাড়া স্টাইলিশ মাফলারগুলোর বেশির ভাগ আমদানি করা হয় চীন, ব্যাংকক ও ভারতসহ বিভিন্ন দেশ থেকে। এসব মাফলার পাবেন ৫০০ থেকে ২০০০ টাকার মধ্যে। ছেলেদের শর্ট মাফলার পাবেন ৫০০ টাকার মধ্যে। নান্দনিক এসব মাফলার পাওয়া যাবে বুটিক শপ থেকে শুরু করে সব মার্কেট ও শীত পোশাকের দোকানগুলোয়।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

shared on wplocker.com