সাম্প্রতিক সংবাদ

সন্ধ্যে হলেই হানা দিচ্ছে বন্য হাতির দল

hati

বিডি নীয়ালা নিউজ(৩১জানুয়ারি১৬)- অনলাইন প্রতিবেদনঃ ভারতের মেঘালয় সীমান্তবর্তী বাংলাদেশের বেশ কিছু গ্রামে এবছর বন্য হাতির তাণ্ডব অন্য যেকোনও সময়কে ছাড়িয়ে গেছে।

স্থানীয় মাখনের চর গ্রামের ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য লুতফর রহমান জানিয়েছেন তারা একজোট হয়ে হাতির আক্রমণ প্রতিহত করার চেষ্টা করছেন।

জানা গেছে মেঘালয় সীমান্তবর্তী বাংলাদেশের ময়মনসিংহ, শেরপুর ও জামালপুরের গ্রামগুলোতে বন্য হাতির তাণ্ডবের খবর নতুন নয়।

প্রতিবছর অন্তত দুটি মৌসুমে মেঘালয়ের জঙ্গল থেকে হাতির পাল বেরিয়ে এসে এসব এলাকার গ্রামে ফসল ও ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে।

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার মাখনের চর গ্রামের বাসিন্দারা বলছেন, গত সাত আটদিন ধরে প্রায় প্রতিদিনই সন্ধেবেলায় ৫০-৬০টি বন্য হাতির একটি পাল এসে তাদের ফসল ও বাড়িঘরের ক্ষয়ক্ষতি করছে।

বিবিসিকে লুতফর রহমান আরও জানান দীর্ঘদিন ধরেই বন্য হাতি তাদের গ্রামগুলোতে আসছে। বিশেষ করে তিনটি এলাকায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করছে।

তিনি বলছেন, “গত ৬/৭ দিন ধরে রীতিমত তাণ্ডব চালাচ্ছে হাতির দল। গম, আম বাগান, সরিষা, মসুর ক্ষেত নষ্ট তো হয়েছেই, বাড়িঘর পর্যন্ত ভাংচুর হচ্ছে। এমনকি অনেকে হাতির ভয়ে অন্য জায়গায় বাস করছে”।

তিনি জানান হাতির হামলা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্যে প্রশাসন থেকে জেনারেটর দেয়া হয়েছে রাতের বেলায় বাতি জ্বালানোর জন্যে। আলো দেখলে হাতির দল কাছে আসতে চায়না। মানুষ সারারাত পাহাড়া দিচ্ছে।

এবার হাতির আক্রমণ বেশি কেন এমন প্রশ্নের জবাবে মিস্টার রহমান বলেন তার ধারণা ভারতীয় এলাকায় খাদ্যের সংকটের কারণে বাংলাদেশ এলাকায় শস্যক্ষেতগুলোতে হানা দিচ্ছে এসব বন্য হাতির দল।

সূত্রঃ বিবিসি বাংলা।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

shared on wplocker.com