সাম্প্রতিক সংবাদ

ট্যানারি স্থানান্তর না করলে কারখানা বন্ধের নির্দেশ নির্ধারিত সময় ৭২ ঘণ্টায় !

Amu

আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে রাজধানীর হাজারীবাগ থেকে ট্যানারি স্থানান্তর না করলে সেখানকার কারখানাগুলো বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। এ নির্দেশনা বাস্তবায়নে বিসিককে ট্যানারি মালিক বরাবর উকিল নোটিশ পাঠানোরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

রোববার (১০ জানুয়ারি) শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সভায় এ নির্দেশনা দেন শিল্পমন্ত্রী। চলতি ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরে শিল্পখাতের উন্নয়নে সরকার গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্পের কার্যক্রম মূল্যায়নের লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট প্রকল্প পরিচালক ও সংস্থার প্রধানদের নিয়ে এ সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন শিল্পমন্ত্রী। এতে শিল্পসচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়াসহ শিল্প মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিভিন্ন সংস্থা/কর্পোরেশনের প্রধান এবং সংশ্লিষ্ট প্রকল্প পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় মন্ত্রী বলেন, নির্ধারিত ৭২ ঘণ্টা পার হওয়ার পরও কোনো ট্যানারি মালিক হাজারীবাগ থেকে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কারখানা স্থানান্তরে ব্যর্থ হলে সাভারের চামড়া শিল্পনগরীতে তার নামে বরাদ্দকৃত প্লটও বাতিল হয়ে যাবে।

সাভারে বাস্তবায়নাধীন চামড়া শিল্পনগরী প্রকল্পের অগ্রগতি মূল্যায়নকালে শিল্পমন্ত্রী বলেন, নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে চামড়া শিল্পনগরীতে কেন্দ্রীয় বর্জ্য শোধনাগারের (সিইটিপি) কাজ শুরু করতে হবে। যেসব ট্যানারি মালিক নির্মাণ কাজে বিলম্ব করছেন, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যারা ট্যানারি স্থানান্তরের জন্য সরকারের দেওয়া ক্ষতিপূরণের অর্থ নিয়ে কাজ বন্ধ রেখেছেন, তাদের হাজারীবাগের কারখানার মালামাল ক্রোক করা হবে।

সভায় ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরে শিল্প মন্ত্রণালয়ের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির অন্তর্ভূক্ত প্রকল্পগুলোর অর্থছাড় ও ব্যয়ের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। এ সময় নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়নের জন্য প্রতি দশ দিন পরপর সংস্থা প্রধানদের নিয়ে মূল্যায়ন সভা ও অগ্রগতি পর্যালোচনার জন্য শিল্পসচিবকে নির্দেশনা দেন মন্ত্রী।

সভায় ভোক্তা পর্যায়ে আয়োডিনযুক্ত ভোজ্য লবণ নিশ্চিত করার ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়। এ লক্ষ্যে বাজার থেকে প্রয়োজনীয় নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষার জন্য বিএসটিআইকে নির্দেশনা দেওয়া হয়।

সুনির্দিষ্ট সময়সীমা অনুযায়ী প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়নের বিষয়ে আরও তৎপর হতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে পরামর্শ দেন মন্ত্রী।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

shared on wplocker.com