সাম্প্রতিক সংবাদ

লাল-সবুজের রেলকোচ এখন পর্যবেক্ষণের জন্য সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় 

train

বিডি নীয়ালা নিউজ(২৪ই মার্চ১৬)- আসাদুজ্জামান সুজন(নীলফামারী প্রতিনিধি): ভারত থেকে আমদানি করা ২০টি যাত্রীবাহী রেল কোচের প্রথম চালান গতকাল বুধবার (২৩মার্চ) বিকেলে সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশনের ইয়ার্ডে পৌঁছেছে। জাতীয় পতাকার আদলে লাল-সবুজ রংয়ের কোচগুলো দেশের বৃহত্তম সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় পরীক্ষা-নিরীক্ষা (পর্যবেক্ষণ) করা হবে। পরে সেসব হস্তান্তর করা হবে রেলওয়ের ট্রাফিক বিভাগে। এ সব রেলকোচ দিয়ে বিভিন্ন রুটে ট্রেন চলাচল করবে বলে জানিয়েছে রেলওয়ে বিভাগ।

রেলওয়ে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত ২২ মার্চ  ভারত থেকে আমদানি করা ১২০টি কোচের মধ্যে ২০টি কোচের প্রথম চালান দর্শনা স্থলবন্দরে হস্তান্তর করেন ভারতীয় কর্তৃপক্ষ । বুধবার আমদানিকৃত  নতুন রেলওয়ে কোচগুলো সৈয়দপুর স্টেশনে এসে পৌছেলে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক (ডিএস) নূর আহম্মাদ হোসেন, ওয়ার্কর্স ম্যানেজার (ডাব্লুএম) কুদরত-ই-খোদা এসব কোচ গ্রহণ করেন।

আমদানি করা ২০টি কোচের মধ্যে ৩টি তাপানুকুল (এসি) বাথ, ৬টি এসি চেয়ার, ৮টি  শোভন চেয়ার এবং ৩টি পাওয়ার কার রয়েছে। সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার ১২নম্বর গেট দিয়ে ভারত থেকে আসা এসব রেলকোচ সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার অভ্যন্তরে নেওয়া হয়। ভারত থেকে বিশেষজ্ঞরা এসে এসব কোচ পরীক্ষা-নিরীক্ষার শেষে রেলওয়ে বিভাগে হস্তান্তর করা হবে।

প্রসঙ্গত, নতুন রেলকোচগুলো ভারতে কাপুরথালা রেলওয়ে কোচ ফ্যাক্টরিতে তৈরি করা হয়। এসব আমদানি কোচ সিল্ক সিটি, ধুমকেতু, পদ্মা, চিত্রা ও সুন্দরবন আন্তঃনগর ট্রেনে সংযোনের সম্ভাবনা রয়েছে। দেশের বৃহত্তম সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় তত্ত্বাধায়ক (ডিএস) নূর আহাম্মদ হোসেন জানান, কোচগুলো আমরা গ্রহণ করেছি। এসব কারখানায় পর্যবেক্ষণ করে সাটিফিকেট প্রদান করা হবে। পরীক্ষামূলক দৌঁড়ে (ট্রায়াল রান) পরীক্ষা সমাপ্ত করে রেলওয়ের ট্রাফিক বিভাগে হস্তান্তর করা হবে।

এদিকে, আমদানিকৃত এসব নুতন রেলওয়ে কোচ সৈয়দপুর এসে পৌঁছলে উৎসুক শত শত নানা বয়সী মানুষ সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশন  ভীড় করেন।

 

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
shared on wplocker.com