সাম্প্রতিক সংবাদ

যে উপায়ে লেবু খেলে দূরে থাকবে ডায়াবেটিস

দিন দিন ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। জীবনযাত্রার অনিয়ম, অস্বাস্থ্যকর খাবার ও শরীরচর্চার অভাব এই রোগের মূল কারণ। চিকিৎসকের পরামর্শ মতো ওষুধ বা খাদ্যাভ্যাসে বদল তো করতেই হবে। কিন্তু তার পাশাপাশি আরও কিছু উপাদান রয়েছে, যেগুলো এই সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। এই তালিকায় একেবারে প্রথমেই রয়েছে লেবু। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফলটি ডায়াবেটিসের সঙ্গে যুদ্ধ করে রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে।

চিকিৎসকদের মতে, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের অনেক উপায় রয়েছে। কিছু নিয়ম মেনে চললে এটি নিয়ন্ত্রণে রেখে সুস্থ জীবনযাপন করা যায়। রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিভিন্ন নিয়ম মেনে চলতে হয়। নিয়মিত ওষুধ, খাদ্যাভ্যাসে ব্যালেন্স ও ব্যায়ামসহ নানাভাবে এই রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

ডায়াবেটিস রোগীদের খাদ্যতালিকায় অনেক খাবার রাখা যায় না। আবার কিছু খাবার না রাখলেই নয়। তেমনই একটি খাবার হলো লেবু। প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি ও ফাইবার সমৃদ্ধ লেবু বা এই জাতীয় ফল ডায়াবেটিসের ‘সুপারফুড’ বলা চলে।

পুষ্টিবিদদের মতে, প্রতিদিন লেবু খাওয়ার উপকারিতা অনেক। লেবুতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো থেকে শুরু করে পেট পরিষ্কার রাখার মতো প্রচুর উপকার করে লেবু। এ ছাড়া নানাভাবে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে এটি। কিন্তু কীভাবে লেবু খেলে নিয়ন্ত্রণে থাকবে ডায়াবেটিস? চলুন ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদন থেকে জেনে নেয়া যাক সেই উপায়।

খালি পেটে লেবুপানি
সকালে খালি পেটে লেবুপানি খাওয়ার পরামর্শ চিকিৎসকদের। হালকা গরম পানিতে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিতে হবে। সেই পানি সকাল সকাল খেলে রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

খাবারে লেবুর রস
প্রতিদিনের খাবারে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। তা সে ভাতই হোক, কিংবা তরকারি— সব কিছুতেই অল্প লেবুর রস মেশালে খেতেও ভালো লাগবে, তার পাশাপাশি নিয়ন্ত্রণে থাকবে রক্তে শর্করার মাত্রাও।

স্যালাডে লেবুর রস
স্যালাড স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী, তা সবারই জানা। এটি খেলে রক্তে চিনির মাত্রা কমেও। কিন্তু আরও ভালো কাজ হয়, যদি স্যালাডে লেবুর রস মিশিয়ে নেন। নিয়মিত এটি খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা কমবে।

ডিটক্স পানি
নিজের জন্য ডিটক্স পানি বানিয়ে নিন। পানির মধ্যে লেবুর রস মিশিয়ে নিন। মিষ্টিজাতীয় কিছু খেতে ইচ্ছা করলে এই পানি খান। এতে মিষ্টি খাওয়ার ইচ্ছা কমবে। তার পাশাপাশি শরীর থেকে টক্সিনও বেরিয়ে যাবে। এতে কমবে রক্তে শর্করার মাত্রা।

ভাত ও আলুর সঙ্গে লেবুর রস
স্টার্চজাতীয় খাবার খাওয়ার সময়ে তার মধ্যে অবশ্যই মিশিয়ে নিন লেবুর রস। বিশেষ করে ভাত বা আলু খাওয়ার সময়ে তাতে লেবুর রস মেশালে রক্তে শর্করার মাত্রা তুলনামূলকভাবে কম বাড়বে।

SO/N

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
shared on wplocker.com