সাম্প্রতিক সংবাদ

তাসকিন-সানির বোলিং প্রশ্নবিদ্ধ, বিস্মিত কোচ

150319034338_taskin_ahmed_640x360_afp_

বিডি নীয়ালা নিউজ(১১ই মার্চ১৬)-স্পোর্টস ডেস্কঃ  বাংলাদেশের পেসার তাসকিন আহমেদ ও স্পিনার আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন নিয়ে আইসিসি সন্দেহ প্রকাশ করার পর বাংলাদেশের কোচ চন্দিকা হাথুরুসিংহে বলেছেন পুরো বিষয়টি তাকে বিস্মিত করেছে।

ধরমশালায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন “গত কয়েক বছর ধরেতো তাসকিন এবং সানি এই অ্যাকশানেই বল করে আসছে। এদের বোলিং অ্যাকশান নিয়ে কেন আইসিসির পক্ষ থেকে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে এর আমি কিছুই বুঝতে পারছিনা”।

তিনি আরও বলেন, “আমি বিস্মিত”!

মি:হাথুরুসিংহে বলেন তিনি বছরখানেক ধরেই এই দুইজন বোলারকে বল করতে দেখছেন।

“আইসিসি’র ম্যাচ রেফারি বা আম্পায়াররা হয়তো নতুন কিছু দেখেছেন, এর চেয়ে বেশি আর কী বলতে পারি”।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পাবার পর তাসকিন আহমেদের বোলিং অ্যাকশান নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ম্যাচের আম্পায়ার।

একইসঙ্গে আরাফাত সানির বিরুদ্ধেও অবৈধ বোলিং অ্যাকশানের বৈধতার বিষয়ে অভিযোগ আনে আইসিসি।

ধরমশালা থেকে বিবিসি বাংলা’র সংবাদদাতা আইসিসি’কে উদ্ধৃত করে জানাচ্ছেন, আগামী ৭ দিনের মধ্যে আইসিসি অনুমোদিত কোনও পরীক্ষাগারে তাসকিন ও আরাফাত সানিকে বোলিং অ্যাকশানের পরীক্ষা দিতে হবে।

আইসিসি জানিয়েছে যে বড় টুর্নামেন্টে কম সময়ের মধ্যেই এই পরীক্ষা দিতে হয়।

যেহেতু তাসকিন আহমেদ ও আরাফাত সানি এই মুহুর্তে ভারতের মাটিতে খেলছেন, তাদের সবচেয়ে কাছের পরীক্ষাকেন্দ্র হলো চেন্নাইতে এবং সম্ভবত সেখানে গিয়েই তারা বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দেবেন।

যদিও তার আগে ধরমশালাতে আয়ারল্যান্ড বা ওমানের বিরুদ্ধে দলের বাকি ম্যাচগুলোতে খেলতে তাদের কোনও বাধা নেই।

কিন্তু আইসিসির এই সিদ্ধান্তে বাংলাদেশ দল যে অত্যন্ত ক্ষুব্ধ, বাংলাদেশের কোচ তা গোপন করার কোনও চেষ্টাই করেননি।

150319034338_taskin_ahmed_640x360_afp_nocredit

মি: হাতুরুসিংহে বলেন, “আইসিসি যেমন আমার বোলারদের নিয়ে কনসার্ন দেখিয়েছে, তেমনি আমারও কিন্তু তাদের পদক্ষেপ নিয়ে কনসার্ন হচ্ছে। কারণ আমি অন্তত তাসকিন বা আরাফাতের অ্যাকশনে কোনও ভুল কিছু দেখিনি। বোধহয় গত প্রায় বারো মাস ধরে তারা এই একই অ্যাকশানে বল করে আসছে। এর মাঝে তারা আইসিসির একাধিক টুর্নামেন্টে খেলেছে। সেখানেতো তাদের আম্পায়ার বা ম্যাচ রেফারিরাই অফিসিয়েট করেছেন। কাজেই বুধবারের ম্যাচে তারা হয়তো অন্য রকম কিছু দেখেছেন এর বেশি আমি আর কীই বা বলতে পারি!”

কোনও ম্যাচে বোলারের অ্যাকশান নিয়ে প্রশ্ন উঠলে প্রথম কলটা সাধারণত করেন ফিল্ড আম্পায়াররাই।

আর তাই বাংলাদেশ দল বুধবারের ম্যাচের দুই আম্পায়ার, ভারতের সুন্দরম রবি আর অস্ট্রেলিয়ার রড টাকারের ভূমিকা নিয়েও খুব একটা খুশি নয়।

রড টাকার ও অ্যান্ডি পাইক্রফট সম্প্রতি বাংলাদেশের বহু ম্যাচে অফিসিয়েট করেছেন। সে সব ম্যাচে কখনও কারও বোলিং নিয়ে প্রশ্নও ওঠেনি।

কাজেই বুধবারের ম্যাচের পর সিদ্ধান্তটা বাংলাদেশকে বেশ হতাশ ও ক্ষুব্ধ করেছে।

যদিও এ ব্যাপারে দলের কোনও খেলোয়াড় বা ম্যানেজমেন্টের কেউই সরকারিভাবে মুখ খোলেননি।

তবে বিশ্বকাপ অভিযানের শুরুতেই দলের বোলিংয়ে অন্যতম প্রধান স্তম্ভ তাসকিন ও আরাফাতের ওপর এই ধাক্কাটা যে বাংলাদেশকে ভোগাতে পারে, বোঝা গেল কোচ হাতুরুসিংহেকে সেটা ভাবাচ্ছে।

সূত্রঃ বিবিসি বাংলা ।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
shared on wplocker.com