সাম্প্রতিক সংবাদ

নীলফামারীতে তামাক চাষে ঝুঁকে পড়ছে কৃষকরা

tamak

বিডি নীয়ালা নিউজ(১২ফেব্রুয়ারি১৬)- আসাদুজ্জামান সুজন (নীলফামারী প্রতিনিধি): বেশি লাভের আশায় নীলফামারীতে তামাক চাষে দিন দিন ঝুঁকে পড়েছেন কৃষকরা। দেহের জন্য ক্ষতিকারক তামাক চাষে লাভ বেশি হওয়ায় এ অঞ্চলের অনেক কৃষকেই রবি ফসল চাষ ছেড়ে দিয়েছেন।

আমন ধানের দরপতনে লোকসান পুষিয়ে নিতে মানব শরীরের জন্য ক্ষতিকর জেনেও লাভজনক বিকল্প ফসল হিসেবে তামাককেই বেছে নিয়েছে তারা।বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এমন চিত্র পাওয়া গেছে। দেখা যায় তামাক ক্ষেত গুলোতে নারী শ্রমিকদের কর্মব্যস্ততা।

জেলা কৃষি বিভাগ সুত্র মতে গত বছর এই জেলায় তামাক চাষ হয়েছিল প্রায় ৪ হাজার হেক্টর জমিতে। কিন্তু এবারে তা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ৭ হাজার হেক্টর জমিতে।

নীলফামারী সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার কৃষকদের সাথে কথা হলে তারা বলেন, এ বছর আমন ধান আবাদ করে খরচের টাকা তুলতে পারিনি। এবার বোরো ধান আবাদ করবো না। ফসল ফলিয়ে কৃষকের সংসার চলে। তাই বাধ্য হয়ে এবার তামাক চাষ করছি। তারা বলেন বাজারে তামাকের দাম অনেক। আবাদের খরচ বাদ দিয়ে এক বিঘা জমিতে তামাক আবাদ করলে কম করে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা লাভ হবে। তামাকের পর ওই জমিতে এবার পাট আবাদ করবে তারা বলে জানায়। পাটের দামও ভাল।

জেলার শিমুলবাড়ি গ্রামের কৃষক আজিজার রহমান, সেকেন্দার আলী বলেন, আমন ধান কাটিয়া ইরি আবাদ কইলে ফসল হয় ওই একটায়। সেই ধানোত তো লোকসান। খরচা টাকাও উঠে না। আর ইরি আবাদ না কইলে ফসল হয় দুইটা তাংকু আর পাট। এই দুইটা ফসলোত লোকসান হয় না। ভালই লাভ হয়। এইজন্য হামরা ইরি  (বোরো) আবাদ ছাড়ি দিছি।

নীলফামারী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক গোলাম মো. ইদ্রিস জানান বাজারে ধানের দরপতনে  লোকসান গুনেছে কৃষকরা। ধানের ন্যায্য দাম পেলে মানব শরীরের জন্য ক্ষতিকর তারা বিড়ি, সিগারেট, গুল ও জর্দার প্রধান উপকরণ তামাক আবাদে ঝুঁকে পড়তো না।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
shared on wplocker.com