সাম্প্রতিক সংবাদ

ধর্মের অপব্যাখ্যাকারীদের বিরুদ্ধে সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন রাষ্ট্রপতি

2016-09-15_10_476654

বিডি নীয়ালা নিউজ( ১৫ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ইং)- ডেস্ক রিপোর্টঃ রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সবাইকে ধর্মের অপব্যাখ্যাকারীদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহবান জানিয়ে বলেন, যাতে কেউ ধর্মের অপব্যাখ্যা করে সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সে জন্য সতর্ক থাকতে হবে।
মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি সঙ্গলবার মঙ্গলবার ঈদের দিন সকালে বঙ্গভবনে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি এ কথা বলেন। তিনি দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে তাঁর আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি বলেনÑ ‘কোনো ধর্মই জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ সমর্থন করে না। সকল ধর্মের প্রধান বার্তা হচ্ছে, জনগণের কল্যাণ নিশ্চিত করা।’
তিনি বলেন, ইসলাম হচ্ছে একটি শান্তির ধর্ম।
রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ঈদুল আজহার মূল তাৎপর্য থেকে সামাজিক ও ব্যক্তি জীবনে শিক্ষা গ্রহণের আহবান জানান।
তিনি বলেন, ‘আমরা সবাই ঈদুল আজহার অন্তর্নিহিত তাৎপর্য অনুধাবনের মাধ্যমে একটি শান্তিপূর্ণ ও সহিষ্ণু সমাজ গড়ে তুলতে পারি। এ জন্য ধৈর্য ও আত্মাত্যাগের মানসিকতায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে।’
আবদুল হামিদ বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির একটি অনন্য উদাহরণ এবং এখানে সকল ধর্মের মানুষ স্বাধীনভাবে তাদের ধর্ম অনুশীলন করছে। যা বাংলাদেশের একটি অসাধারণ ঐতিহ্য।
তিনি বলেন, ‘জাতীয় উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে সঠিকভাবে ঈদুল আজহার শিক্ষা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য নিজেদের সামাজিক ও ব্যক্তিজীবনে অনুসরণ করতে হবে।’
ঈদুল আজহা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি সবার সুখ ও সমৃদ্ধি কামনা করে শুভেচ্ছা জানান।
রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও তাঁর স্ত্রী রাশিদা খানম, সরকারি শীর্ষ কর্মকর্তা, সুশীল সমাজ এবং বিদেশী কূটনীতিকদের জন্য এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।
স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা সংবর্ধনায় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।
সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিগণ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, তিন বাহিনীর প্রধানগণ, সম্পাদক, সচিব, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণ, শিক্ষাবিদ, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তিগণ, সিনিয়র সাংবাদিক, লেখক, কবি, সাহিত্যিক, ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি, ধর্মীয় ব্যক্তিত্ব, শিল্পী, উচ্চপদস্থ বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তাগণ সংবর্ধনায় যোগ দেন।
বাংলাদেশে অবস্থানরত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত এবং হাইকমিশনার ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধানগণ সংবর্ধনায় অংশ নেন।
রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অতিথিদের অভ্যর্থনা জানান, তাদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং তাদের সমৃদ্ধ জীবন কামনা করেন।

 

বাসস

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
shared on wplocker.com