সাম্প্রতিক সংবাদ

উল্লাপাড়ায় অবৈধ মোটর সাইকেল ও সিএনজি’র চলাচল ॥ পেট্রোল বিক্রেতারা আইন মানছে না

4-2

বিডি নীয়ালা নিউজ(৭ই ফেব্রুয়ারী ১৬) মারুফ সরকার (সিরাজগনজ প্রতিনিধি):  সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় সরকারি রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মোটর সাইকেল এবং সিএনজি অবাধে চলাচর করছে। স্থানীয় পৌর সদরে ও উপজেলার বিভিন্ন সড়ক পথে এসব মোটর সাইকেল এবং সিএনজি চলাচল করছে। এদিকে পুলিশ প্রশাসন রেজিষ্ট্রেশন বিহীন এসব যানবাহনের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে নীরব ভূমিকা পালন করছেন। অপরদিকে সরকারি আইন না মেনে তেল ব্যবসায়ীরা রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মোটর সাইকেলের মালিকদের কাছে পেট্রোল বিক্রি করছে। উল্লাপাড়ায় মোটর সাইকেলের সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। আনকোড়া নতুন এসব মোটর সাইকেল প্রতিদিনই চোখে পড়ছে। পুরানোগুলোতো আছেই। জানা গেছে, মোটর সাইকেলে সরকারি রেজিষ্ট্রেশন এবং মালিক-চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকা বাধ্যতামূলক। উল্লাপাড়ায় চলছে এমন অনেক মোটর সাইকেলের সরকারি রেজিষ্ট্রেশন নেই। এসব মোটর সাইকেলের নম্বর প্লেটে বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানের নাম লেখা কিংবা অনটেষ্ট লিখে দিব্বি চালানো হচ্ছে। এমনকি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের নাম লেখা থাকছে। এর পাশাপাশি ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই এমন মালিক-চালকের সংখ্যা শতকরা হিসাবে নব্বইভাগ বলে অনুমান করা গেছে। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে বেশ কয়েকজন মালিক ও চালক আলাপকালে জানান, মোটর সাইকেলের সরকারি রেজিষ্ট্রেশন এবং ডাইভিং লাইসেন্স থাকা বাধ্যতামূলক, তাদের তা জানা আছে। তবে রেজিষ্ট্রিশন না করার পিছনে টাকা নয়, তাদের অনিচ্ছাই মূল কারণ বলে জানা গেছে। উল্লাপাড়ায় পুলিশ প্রশাসন থেকে মাঝে মধ্যেই রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মোটর সাইকেলের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয়ে থাকে। স্থানীয় সড়ক পথে বিভিন্ন পয়েন্টে চেকপোষ্ট বসিয়ে এ অভিযান চালানো হয়। বিগত সময় এ অভিযানকালে বহু সংখ্যক রেজিষ্ট্রেশনবিহীন মোটর সাইকেল আটক করা হয়। এরপর জরিমানা কিংবা থানায় এনে আটকে রেখে মামলা দায়ের হয়। অনেক সময় দেখা যায়, রেজিষ্ট্রেশনবিহীন আটক মোটর সাইকেল চেকপোষ্ট কিংবা অভিযান স্থান থেকেই ছেড়ে দেয়া হয়। প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বদের তদবির অনুরোধেই তা ছেড়ে দেয়া হয়ে থাকে বলে জানা যায়। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন থেকে অভিযানের পরবর্তী দু’চারদিন রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মোটর সাইকেলের চলাচল কমে যায়। এরপর আবার অবাধে চলাচল শুরু করে দিয়েছে। এদিকে সরকারি আইনে আছে পেট্রোল কোন অবস্থাতেই রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মোটর সাইকেল এবং অন্যান্য যানবাহনের চালক-মালিকদের কাছে বিক্রি করা যাবে না। অথচ পেট্রোল বিক্রেতারা তা মানছেন না। অপরদিকে উল্লাপাড়ায় তিন চাকার অনেক সিএনজি’র সরকারি রেজিষ্ট্রেশন নেই। এসব রেজিষ্ট্রেশন বিহীন সিএনজি চালক-মালিকেরা দিব্বি বিভিন্ন সড়ক পথে চলাচল করছে। এ ব্যাপারে উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেওয়ান কেউশিক আহমেদ জানান, রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মোটর ও সিএনজি প্রায়ই আটক ও মামলা করা হচ্ছে। তবে এ অভিযান অবশ্যই জোরদার করা হবে।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
shared on wplocker.com