সাম্প্রতিক সংবাদ

উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলা

Joldhaka

বিডি নীয়ালা নিউজ(২২ই ফেব্রুয়ারি১৬)-আসাদুজ্জামান সুজন (নীলফামারী প্রতিনিধি):   নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলা উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে।চলতি সপ্তাহে উপজেলার বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন নীলফামারী-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা।

তিনি আজ সোমবার (২২শে ফেব্রুয়ারি) শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীনে তিনকোটি টাকা ব্যয়ে কৈমারী স্কুল এন্ড কলেজের একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।

এসময় কলেজ চত্তরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের সভাপতি আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুরের সভাপতিত্বে বক্তৃতা দেন প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফা, কৈমারী ইউপি চেয়ারম্যান কহিনূজ্জামান লিটন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইদার রহমান, শিক্ষক নারায়ন চন্দ্র রায়সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

প্রতিষ্ঠানের সভাপতি আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর জানান, শিক্ষা প্রকৌশল বিভাগের অধীনে তিন কোটি টাকা ব্যয়ে চারতলা ভিত্তির একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে এক কোটি ৩৪ লাখ টাকা ব্যয়ে দুই তলা পর্যন্ত নির্মাণ করা হবে।

এদিকে গত শনিবার সকাল ১১টায় রশিদপুর বালিকা স্কুল এন্ড কলেজ, দুপুর ১টায় মীরগঞ্জ হাট ডিগ্রী কলেজ ও বিকাল ৩টায় টেংগনমারী ডিগ্রী কলেজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন তিনি।

এ ব্যাপারে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর জলঢাকার দায়িত্বে  উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. মইনুল ইসলাম জানান, রশিদপুর বালিকা স্কুল এন্ড কলেজ ৪৮ লাখ ২৩হাজার, মীরগঞ্জ হাট ডিগ্রী কলেজ ৪৮ লাখ ২৩ হাজার ও টেংগনমারী ডিগ্রী কলেজে ১ কোটি ১৬ লাখ ৬৯ হাজার টাকার কাজ বাস্তবায়িত হবে।

অপরদিকে রবিবার(২১শে ফেব্রুয়ারি) জলঢাকা উপজেলায় এলজিইডির ত্বত্তাবধানে ৪ কোটি ২৮ লাখ টাকা ব্যয়ে গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় ৪টি ইউনিয়নে সাড়ে সাত কিলোমিটার পাকা সড়ক নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে।

ওইদিন দুপুরে পৃথক চার স্থানে ওই কাজের উদ্বোধন করেন নীলফামারী-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা। এসময় উপস্থিত ছিলেন নীলফামারী এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী বেলাল হোসেন, জলঢাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসান হাবিব ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।

FB_IMG_1456072682356

এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী বেলাল হোসেন জানান, রংপুর বিভাগের গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় জলঢাকা উপজেলার শিমুলবাড়ি ইউনিয়নের ৩ কিলোমিটার, কৈমারী ইউনিয়নে ২ কিলোমিটার, ধর্মপাল ইউনিয়নে ২ কিলোমিটার এবং মীরগঞ্জ ইউনিয়নে ১ কিলোমিটারসহ মোট আটটি সংযোগ সড়কে সাড়ে সাত কিলোমিটার পাকা করণের কাজ হাতে নেয়া হয়েছে। এতে খরচ হবে ৪ কোটি ২৮ লাখ টাকা। নির্মাণকাজ শেষে এসকল ইউনিয় থেকে দ্রুত উপজেলা এবং জেলা সদরের সংগে যোগাযোগ করা সম্ভব হবে।

উপজেলার এ সকল উন্নয়ন কাজ শুরু হওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে অনেক আনন্দ ও উল্লাস দেখা যাচ্ছে।তারা বলছে  দূত এ সকল উন্নয়ন বাস্তবায়ন করে এলাকাবাসীর উন্মুক্ত করে দিতে হবে তবেই জনগনের প্রানের দাবি পূরন হবে।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
shared on wplocker.com